১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | ১লা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পরিবেশগত পরিবর্তন মোকাবিলায় বনায়ন প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক ।। পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা হলো দেশে বনায়ন করে সবুজ বেষ্টনীতে পরিবর্তন করা ও দেশের ২৫ শতাংশ এলাকা বনায়ন করা। প্রধানমন্ত্রী গত ১৬ জুলাই বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধনকালে পুরো দেশে এক কোটি বৃক্ষরোপন করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

সে নির্দেশনা অনুযায়ী পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে পানি উন্নয়ন বোর্ড ১০ লাখ বৃক্ষরোপনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। আমরা দুই হাজার ৫০০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের বিভিন্ন স্থানে ফলজ, ওষুধিসহ বিভিন্ন ধরনের গাছ লাগাবো।

বরিশাল সদর উপজেলার শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের দক্ষিণ চরআইচা গ্রামে শুক্রবার (১৪ আগস্ট) বেলা ১১টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের আওয়তায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পরিবেশগত পরিবর্তন মোকাবিলা করার জন্য বনায়ন খুব প্রয়োজন। বর্তমানে অতীতের তুলনায় প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টি হচ্ছে। গত ১০ বছর আগে যে ধরনের গরম পড়তো এখন কিন্তু তার পরিমাণ বেড়েছে, অর্থাৎ উষ্ণতা বেড়েছে। এসব কারণে বনায়ন করা খুবই প্রয়োজন। বনায়ন করলে পরিবেশগত পরিবর্তন হবে, জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য উষ্ণতা যে বেড়েছে সেটা আমরা সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে পারবো।

তিনি বলেন, সবার প্রতি অনুরোধ বাড়ির আশপাশে যেখানে খালি জায়গা পাবেন সেখানেই গাছ লাগাবেন। গাছ ঝড়-বৃষ্টি থেকে বাড়িকে রক্ষা করে। কয়েকমাস আগে আম্পান নামক ঝড়ে সাতক্ষীরা, খুলনা, পটুয়াখালীসহ উপকূলীয় এলাকায় অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আমরা পরিদর্শনে গিয়ে দেখেছি যেসব নদীর পাড়ে কিংবা বাড়ির পাশে গাছ ছিলো সেখানে ক্ষতির পরিমাণ কম হয়েছে। যে নদীর তীরে গাছ ছিলো না সেখানে প্রচুর ক্ষতি হয়েছে, এমনকি অনেক নদী ভাঙনও হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ যাতে একটি সবুজ বেষ্টনীতে পরিণত হয় এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের ২৫ শতাংশ এলাকাকে বনায়নের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি সেজন্য বৃক্ষরোপন করতে হবে।

দক্ষিণাঞ্চল পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মো. হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডে মহাপরিচালক এ এম আমিনুল হক, জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান।

অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রী শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নে ক্ষতিগ্রস্ত স্লুইস গেট ও রাস্তা এবং বরিশাল নগরীর বেলতলা খেয়াঘাট সংলগ্ন ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

অন্য খবর