৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং | ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নলছিটিতে পল্লী চিকিৎসককে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী কারাগারে

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ।। ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার মানপাশা গ্রামের পল্লী চিকিৎসক জিয়াউর রহমান হাওলাদারকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী মো. নাসির উদ্দীনের জামিন না মঞ্জুর করেছে আদালত।

রবিবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নাসিরের পক্ষে জামিন আবেদন করেন এ্যাড. নাছির উদ্দিন । অপর দিকে জামিনের বিরোধিতা করেন বাদি পক্ষের আইনজীবী মো. আক্কাস সিকদার ও এ্যাড. মানিক আচার্য্য । ঝালকাঠি সিনিয়র জুডিসিয়াল ভার্চুয়াল আদালতের বিচারক এএসএম তারিক শামস উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে জামিন না মঞ্জুর করেন।

গত বৃহস্পতিবার রাতে নাসিরকে গ্রেফতার করে নলছিটি থানা পুলিশ। শুক্রবার সকালে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই নাঈমুর রহমান নাসিরকে আদালতে সোপর্দ করেন। ওই দিনই নাসিরের পক্ষে জামিন আবেদন করলে আদালত রোববার শুনানীর দিন ধার্য্য করেন।

মামলার বিবরণে যানা যায়, নলছিটি উপজেলার ফয়রা গ্রামের মরহুম মফিজুর রহমানের ছেলে পল্লী চিকিৎসক মো. জিয়াউর রহমানকে গত ০৭ জুন দুপুর একটার দিকে ফয়রা হাওলাদার বাড়ির সামনে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই এলাকার মৃত. এরফান হাওলাদারের ছেলে মো. নাসির, তার সহযোগি হুমায়ন কবির দলবলসহ হামলা করে কুপিয়ে আহত করে।

স্থানীয়রা জিয়াকে উদ্ধার করে প্রথমে নলছিটি উপজেলা হাসপাতালে পরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ব্যাপারে আহত জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মো. আমানউল্লাহ বাদি হয়ে ৮ জুন নলছিটি থানায় একটি হত্যা চেস্টা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই নাঈমুর রহমান বলেন, মামলার প্রধান আসামী নাসিরকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

অন্য খবর