১৫ই আগস্ট, ২০২০ ইং | ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্সা ছেড়ে রোনালদোর দলে যোগ দিতে পারে মেসি

অনলাইন ডেস্ক ।। কয়েকদিন আগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসিকে একই দলে খেলানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার কার্লোস তেভেজ। তবে সেটি শুধুমাত্র একটি ম্যাচের জন্য। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রিভালদো দেখছেন মেসি-রোনালদো একই ক্লাবে পুরো মৌসুম খেলার সম্ভাবনা।

গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে, ২০২১ সালের পর আর বার্সেলোনায় থাকবেন না মেসি। কেননা স্প্যানিশ ক্লাবটির সঙ্গে এখনও নিজের বর্তমান চুক্তি নবায়ন করেননি আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। শোনা যাচ্ছে, ক্লাবের সঙ্গে মনমালিন্যের কারণেই নতুন চুক্তিতে অনাগ্রহ মেসির। ফলে ২০২০-২১ মৌসুম শেষেই তিনি আর থাকবেন না বার্সেলোনায়।

আর এমনটা হলে মেসি যোগ দিতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর বর্তমান ক্লাব জুভেন্টাসে- এমনটাই মনে করেন ব্রাজিল ও বার্সেলোনার সাবেক তারকা ফুটবলার রিভালদো। তার মতে, এমন সুযোগ পাওয়া গেলে তা হাতছাড়া করা উচিৎ হবে না জুভেন্টাসের। কেননা চড়া মূল্য দিয়ে কিনতে হলেও, মেসির ব্র্যান্ড ভ্যালুর কারণেই সব অর্থ উঠে যাবে।

বেটফেয়ারকে দেয়া সাক্ষাৎকারে রিভালদো বলেন, ‘এখন চলমান সব আলোচনার মাঝেই আমি বিশ্বাস করি যে, কিছু এজেন্ট নিশ্চিতভাবেই স্বপ্ন দেখছে জুভেন্টাসে মেসি-রোনালদোকে একসঙ্গে খেলানোর। বিশ্বের জন্য এটা কত বড় একটা বিষয় হতে পারে!’

তিনি আরও বলেন, ‘যদি সত্যিই এমনটা হয়, তাহলে পুরো ফুটবল বিশ্বের জন্য দুর্দান্ত একটি বিষয় হবে। আমি বিশ্বাস করি জুভেন্টাস যত টাকাই খরচ করুক, পুরোটাই তারা মেসির ব্র্যান্ড ভ্যালুর মাধ্যমে তুলে ফেলতে পারবে। এ দুজনকে একসঙ্গে একই দলে খেলতে দেখা ঐতিহাসিক একটা ব্যাপার হবে। আমি নিশ্চিত জুভেন্টাসের স্পন্সররা এ বিষয়ে উদারহস্তে সাহায্য করতে প্রস্তুত।’

‘তাই মেসির নতুন গন্তব্য হিসেবে এটিও (জুভেন্টাসে যোগ দেয়া) একটা সম্ভাবনা। যদি তার (মেসি) ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন আরও জোরালো হয়, তাহলে সব ক্লাবই চেষ্টা করবে তাকে দলে নিতে। এ কারণেই গত এক দশকের দুই সেরা খেলোয়াড় একই দলে খেলাটা অসাধারণ এক বিষয় হবে।’

তবে রিভালদো খোলা রাখছেন অন্য পথও। তার বিশ্বাস অনুযায়ী, জুভেন্টাসে না হলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে যেতে পারেন মেসি। কেননা সেখানে গেলে মেসি পাবেন সাবেক গুরু পেপ গার্দিওলার সান্নিধ্য। মেসি-গার্দিওলা জুটি পেয়ে ম্যান সিটিও শক্তিশালী হবে আগের চেয়ে।

রিভালদো বলেন, ‘চুক্তি শেষে মেসির বয়স হবে ৩৪। তবে আমি মনে করি, তার মানের একজন খেলোয়াড় তখনও খুব সহজেই প্রিমিয়ার লিগে খেলতে পারবে। তাকে বার্সা ছাড়তে দেখা খুবই কষ্টকর হবে। যদি এমন হয়, তাহলে তার যেকোন ক্লাবে যাওয়ার অধিকার রয়েছে। পেপ গার্দিওলার সঙ্গে পুনরায় জুটি বাধাও দারুণ হবে। বার্সেলোনায় তারা দুর্দান্ত ছিল।’

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn

অন্য খবর